কুড়িগ্রামের

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে প্রেমিকের হাতে প্রেমিকার বাবা খুন হওয়ার চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁস হওয়ায় পুলিশ প্রেমিককে আটক করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার রাজারহাট ইউনিয়নের নাটুয়ামহল পোদ্দারপাড়া গ্রামে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ওই গ্রামের খগেন্দ্র নাথ রায়ের পুত্র মৃণাল কান্তি (২৩) একই গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের মেয়ে
সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী (১৩) এর সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে প্রেম চলছিল। কিন্তু বিষয়টি তার বাবা মোসলেম উদ্দিন জানতেন না।

ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার রাতে প্রেমিকার শয়ন ঘরে প্রেমিক যুগল অবস্থান করলে বাজার থেকে এসে বিষয়টি টের পান পিতা
মোসলেম উদ্দিন। এরই এক পর্যায়ে দরজা ভেঙ্গে মোসলেম উদ্দিন ঘরে প্রবেশ করলে প্রেমিক মৃণাল কান্তি নিজেকে বাঁচাতে
প্রেমিকার বাবাকে আঘাত করে পালিয়ে যায়।

এ সময় প্রেমিকার বাবা গুরুতর আহত হয়। বাড়ির লোকজন তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথেই
মোসলেম উদ্দিন (৪৮) মারা যান বলে মেডিকেলের কর্তব্যরত ডাক্তার জানান।

বিষয়টি চেপে গিয়ে পরিবারের লোকজন আজ শুক্রবার লাশ দাফনের ব্যবস্থা করলে এলাকাবাসীর সন্দেহ হয়। খবর পেয়ে
রাজারহাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট করে। সুরতহালে লাশের ডান হাতে রক্ত ও বুকে
ও অণ্ডকোষে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে একাধিক এলাকাবাসী জানায়।

পরে পুলিশ প্রেমিকা ও তার মা পারুল বেগমকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদে ঘাতক প্রেমিক মৃণাল কান্তির নাম বের হয়। পুলিশ
মোসলেম উদ্দিনের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম হাসপাতালে এবং প্রেমিক মৃণাল কান্তি রায়কে বাড়ি থেকে আটক করে
থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় রাজারহাট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।

রাজারহাট থানার ওসি কৃষ্ণ কুমার সরকার ঘটনার নিশ্চিত করে বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রেমিক মৃণাল কান্তির
সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে।

ফিরোজ কবির কাজল

Leave your comments