খাগড়াছড়ি

দীর্ঘ ৭ বছর পর খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে সভাপতি ও নির্মলেন্দু চৌধুরীকে সাধারণ সম্পাদক এবং মোঃ দিদারুল আলমকে সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়েছে।

আজ রোববার (২৪ নভেম্বর) সকালের দিকে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে
সম্মেলনের উদ্বোধন করেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এবং প্রধান অতিথি মাহবুব উল আলম হানিফ।

জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি‘র সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি বলেন, শেখ হাসিনার
নেতৃত্বে দেশে অর্থনৈতিক মুক্তির লড়াই চলছে। উন্নয়নের সবচেয়ে বড় বাঁধা দুর্নীতি। দুর্নীতির বিরুদ্ধে সর্বব্যাপী অভিযান
চলবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনরার দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে। তিনি আরো বলেন ২০০১-০৬ পর্যন্ত
বিএনপি‘র দুঃশাসনের সময় খাগড়াছড়ি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের অত্যাচার নিপীড়ন নেমে এসেছে। সেটা এখন
আর নেই।

এতে আরো বক্তব্য রাখেন পার্বত্য মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক
ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সাবেক সাংসদ যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা, জেলা আওয়ামী
লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি রণ বিক্রম ত্রিপুরা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহেদুল আলম, সম্মেলন প্রন্তুতি কমিটির
আহবায়ক চাইথো অং মারমা প্রমুখ।

পরে দ্বিতীয় অধিবেশনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে কাউন্সিলরদের ঐক্যমতের ভিত্তিতে কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে সভাপতি ও নির্মলেন্দু চৌধুরী সাধারণ সম্পাদক এবং মোঃ দিদারুল আলম দিদার‘কে সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে তিন বছরের জন্য মনোনীত করা হয়।

প্রধান অতিথি মাহবুবুল আলম হানিফ বিএনপি‘র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সমালোচনা করে বলেন, সরকার সবক্ষেত্রে ব্যর্থ নয়, দেশে গণতন্ত্র আছে বলেই বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীররা নির্লজ্জভাবে মিথ্যাচার করে যেতে পারছেন। আপনারা দেশটাকে কোথায় রেখে গিয়েছিলেন, সে কথা কি ভুলে গেছেন? এতিমের টাকা আত্মসাতের দায়ে যাদের নেত্রী কারাগারে, লজ্জা থাকলে বিএনপি‘র নেতারা দূর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলতো না। ৭৫ সালে জাতির পিতাকে হত্যার পর যারা ক্ষমতায় এসেছিলো, তারা জাতী-গোষ্ঠীর মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি করে পাহাড়কে অশান্ত করেছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শান্তিচুক্তি করে অশান্তপাহাড়কে শান্ত করেছে।

মোফাজ্জল হোসেন ইলিয়াছ,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি

Leave your comments